1. hmamanulislam@gmail.com : News Cox : News Cox
শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাম ইনস্টিটিউটে আগুন, ৫ লাশ উদ্ধার কাদের মির্জার বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতার মামলা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর পাচ্ছেন ৬৯ হাজার ৯০৪ ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবার ভারত সরকারের উপহার করোনার ২০ লাখ ডোজ টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে কক্সসবাজার সমুদ্র সৈকতে নির্মিত স্থাপনা উচ্ছেদ করতে কউক চেয়ারম্যান ও ডিসিকে চিঠি এপ্রিলে মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষা , ১১শ’ আসন বাড়ছে খুটাখালীর পীর আবদুল হাই (রাহঃ) ইছালে ছওয়াব মাহফিল ২২ ও ২৩ জানুয়ারী কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভর্তি কার্যক্রমের সংশোধিত বিজ্ঞপ্তিঃ পরিবার নিয়ে দেখা যায় এমন সিনেমা তৈরি করুন: প্রধানমন্ত্রী বিজিবি টেকনাফের নাফ নদী থেকে ৫লাখ ২০ হাজার ইয়াবা বড়ি জব্দ করেছে

কক্সবাজার সিটি কলেজ হতে বাস টার্মিনাল পর্যন্ত সন্ধ্যার পর ছিনতাইকারী ও ডাকাতদের অভয়ারণ্য

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন
কক্সবাজারে ডাকাতের ছুরিকাঘাতে মেডিপ্লাস কোম্পানির কর্মকর্তা আনোয়ার হোছাইন (৩৫) নিহত। গত ২২ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শহরের বাসটার্মিনাল বিএডিসি খামার সংলগ্ন ( বাসটার্মিনাল ও বিজিবি ক্যাম্পের মধ্যে )সড়কে এ ঘটনা ঘটে।নিহত আনোয়ার বগুডা জেলার আদমদীঘির তবিবুর রহমানের ছেলে। পথচারী শাফায়েত জানান,সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বিএডিসি খামারের সডকের পাশে ছুরিকাহত এক ব্যক্তিকে দেখে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে দেখার পর মৃত বলে ঘোষণা করেন।নিহত আনোয়ারকে বুকে ও শরিরের বিভিন্ন অংশে ছুরিকাঘাত করা হয়।জানা যায় ইতিপূর্বে মেডিপ্লাসের আরো দুই কর্মকর্তা একই স্থানে এই ডাকাতদের কবলে পড়ে সর্বস্ব হারিয়ে প্রানে বেঁচে গিয়েছিল।প্রতিনিয়ত আরো অনেকে একই স্থানে ডাকাত ও ছিনতাইয়ের আক্রমণের স্বীকার হয়েছে এবং খুন হয়েছে।এ ব্যাপারে সাধারণ মানুষ পুলিশের উর্ধতন কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা সহ কার্যকরী পদক্ষপ দেখতে চাই।বাসটার্মিনাল ও রুমালীর ছড়ায় ২টি পুলিশ ফাঁড়ি থাকার পরও কেন এসব বন্ধ হচ্ছে না জনগনের কাছে তা প্রশ্নবিদ্ধ। টহল পুলিশের ভুমিকা নিয়ে ও বাজে মন্তব্য করতে শুনা যাচ্ছে। সামনের উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের আইন শৃঙ্খলা কমিটির বেঠকে বিষয়টি নিয়ে স্থায়ী সমাধানের একটি সিদ্ধান্ত গ্রহনের জোর দাবী সর্বমহলের।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান,সদর মডেল থানায় আবারো দালালদের আনাগোনা বেড়ে গেছে।দালালদের কারনে এসব ছিনতাইকারী ও বিভিন্ন মামলার আসামীরা পার পেয়ে যায়।পুলিশের অভিযানের কথা দালালরা আগেই জেনে অপরাধীদের সর্তক করে দেয়।এটার জন্য থানার দালালরা তাদের কাছ থেকে মাসোয়ারা নেন।সচেতন মহলের দাবী দালাল নই পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগকে কাজে লাগিয়ে প্রকৃত ছিনতাইকারীদের আটক করা হোক।না হলে পর্যটন মৌসুমে পর্যটন ব্যবসায় ধস নামতে পারে।অন্যতায় এ খুনের দায় দায়িত্ব সরকারকে বহন করতে হবে।ক্ষমতাসীন দলের নেতৃবৃন্দকে এ ব্যাপারে এগিয়ে আসার অনুরোধ করা হয় সচেতন মহলের পক্ষ থেকে।

Share this Post in Your Social Media

এই ধরনের আরও খবর
Copyright © 2020, NewsCox. All rights reserved.
NewsCox developed by 5dollargraphics