1. hmamanulislam@gmail.com : News Cox : News Cox
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৭:২৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নের এক ওয়ার্ডেই বাংলাদেশি বনেছেন দুই শতাধিক রোহিঙ্গা! ভল্ট থেকে ৪ কোটি টাকা উধাও, যা বললেন ঢাকা ব্যাংকের এমডি প্রধান বিচারপতির আদেশ জারি রবিবার থেকে বসছে হাইকোর্টের সব বেঞ্চ তালেবানদের সঙ্গে সংঘর্ষ, আফগান সেনাবাহিনীর ২৩ কমান্ডো নিহত করোনা নিয়ে কোনো রকম ঝুঁকি নিতে না করেছেন প্রধানমন্ত্রী বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নানের দায়িত্ব গ্রহণ উদ্ভট বিবৃতি নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য দলের নেতাকর্মীসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি জাফর আলম এমপির আহবান সেনাবাহিনীর নতুন প্রধান হচ্ছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ কক্সবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদ্রাসার গর্ভনিং বডির দাতা সদস্য রফিক আহমদ চৌধুরীর ইন্তেকাল এমনভাবে ঈদ উদযাপন করবেন না, যাতে সংক্রমণ বেড়ে যায় : প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশী কৃষি বিজ্ঞানীদের আবিস্কার আটটি সুগন্ধী ধানের জাত বদলে দিতে পারে কৃষি অর্থনীতি

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০

ডেক্স নিউজ:

বাংলাদেশ রাইস রিসার্চ ইন্সটিটিউট এ পর্যন্ত সুগন্ধী চালের আটটি জাত আবিস্কার করেছেন। ক্রমবর্ধমান চাহিদা এবং উচ্চ মূল্যের কারনে সুগন্ধী চালের দিকে ঝুকছে কৃষকরা।দেশে সুগন্ধী চালের যেসব জাত চাষ হয় তার ফলনের থেকে দ্বিগুণ ফলন হয় ব্রি এর উদ্ভাবিত নতুন জাতগুলিতে। ফলে কৃষকের লাভ বেশি আসে।যেখানে দেশীয় জাতগুলিতে উৎপাদন হয় বিঘা প্রতি ১৮৭-২৯৯ কেজি সেখানে ব্রি উদ্ভাবিত জাতগুলিতে বিঘা প্রতি উৎপাদন হয় ৪৪৮-৮২১ কেজি পর্যন্ত। ক্ষেত্র বিশেষে ৩ থেকে ৪ গুন বেশি ফলন হয় এই জাতগুলিতে।ব্রি উদ্ভাবিত ৮ টি সুগন্ধী চালের ধান গুলি হল-

১. বি আর ৫ ( দুলাভোগ)
২. ব্রি ধান ৩৪ (চিনিগুড়া চালের মত ও দ্বিগুন উৎপাদন)
৩. ব্রি ধান ৩৭
৪. ব্রি ধান ৩৮
৫. ব্রি ধান ৭০ (কাটারিভোগের মত)
৬. ব্রি ধান ৭৫
৭. ব্রি ধান ৮০ (জেসমিন)
৮. ব্রি ধান ৫০ (বাংলামতি / বাসমতি)

এগুলার ভেতর কৃষকরা সবথেকে বেশি চাষ করেন ব্রি ধান ৩৪। ১৯৯৭ সালে বাজারে অবমুক্ত করা হলেও ২০১০ এর পর থেকে এর চাষ বৃদ্ধি পাচ্ছে।আরেকটি জাত হল ব্রি ধান ৭০ যেটা দেশীয় জাত কাটারিভোগের মত। বিঘা প্রতি এই জাতের উৎপাদন প্রায় ৬৩৪.৪ কেজির মত। কাটারিভোগের উৎপাদনের তুলনায় এটা প্রায় দ্বিগুণ।ব্রি ধান ৮০ থাইল্যান্ডের জনপ্রিয় ধানের জাত জেসমিনের মত এবং বিঘা প্রতি উৎপাদন হয় প্রায় ৬৭২ কেজি।ব্রি ধান ৫০ এদেশে ক্রমেই পরিচিতি পাচ্ছে। এর নাম বাংলামতি। হেক্টর প্রতি উৎপাদন হয় ৬-৬.৫ টন।বাংলাদেশে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁ, পঞ্চগড়, রংপুর, নওগা, রাজশাহী, ময়মনসিংহ এবং শেরপুরে সুগন্ধী চালের বাণিজ্যিক চাষ সবথেকে বেশি হচ্ছে।২০১৫-১৬ অর্থবছরে সুগন্ধী চালের উৎপাদন ছিল ২.৯ লক্ষ টন যার ভেতর ব্রি ধান ৩৪ উৎপাদিত হয়েভহে ১.০৫ লক্ষ টন।

Share this Post in Your Social Media

এই ধরনের আরও খবর
Copyright © 2020, NewsCox. All rights reserved.
NewsCox developed by 5dollargraphics